Dec 28, 2016
85 Views
0 0

খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবানে খ্রীস্টান হচ্ছেন কারা?

লিখেছেন:

ধম্মবিরীয়: পার্বত্য চট্টগ্রাম খাগড়াছড়ি জেলার সাজেক ইউনিয়নের ২০টি গ্রামে খেয়াং, বম, পাংখু, লুসাই আদিবাসী সম্প্রদায়ের ১০ হাজার মানুষের বাস থাকলেও ২০ বছর আগেও এখানে খ্রিস্টান ধর্মের কোন চিহ্ন ছিল না। তবে এখন এদের অধিকাংশই ধর্মান্তরিত হয়ে খ্রিস্টধর্মে দীক্ষিত হয়ে গেছে।

বান্দরবানের চিম্বুক, শৈল প্রপাত এলাকায় বম, ত্রিপুরা, ম্রো ও নাইক্ষংছড়ির চাক সম্প্রদায় এখন অধিকাংশ খ্রিস্টান বানানো হচ্ছে চাকদের।

পার্বত্য অঞ্চলের তিন জেলায় এক সময় বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের সংখ্যাধিক্য থাকলেও ধীরে ধীরে বদলে যাচ্ছে সেই হিসেব। একদিকে ধর্ম প্রচার ও আর্থিক প্রলোভনে খ্রিস্টান ধর্মে দীক্ষিত হচ্ছেন অনেকেই। একই সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সমতল জেলা থেকে বহিরাগত অনুপ্রবেশ ও বাঙালি মুসলিমদের মধ্যে জন্মনিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের অনুপস্থিতির কারণে তিন জেলায় এখন বাঙালি মুসলিমদের জনসংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে বাড়ছে।

দৈনিক ইনকিলাব এর ২৮ডিসেম্বর প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়িতে বসবাস করে ১৩টি আদিবাসি জাতিগোষ্ঠী রাজনৈতিক বিচ্ছিন্নতা, চরম দারিদ্র্য, ক্ষুধা, মহামারী, অপুষ্টি ও স্যানিটেশন মত তাদের নিত্যদিনের সমস্যার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে স্বার্থসিদ্ধি করছে একটি স্বার্থসিদ্ধ মহল।

আইন-শৃংখলা বাহিনীর তথ্য সূত্রে প্রতিবেদনে বলা হয়, গত দেড় বছর পার্বত্য এলাকায় ১৫৪টি পরিবারের ৪৭৫জন সদস্যকে খ্রিস্টান ধর্মে ধমান্তরিত করা হয়েছে। এসব পরিবারকে বিভিন্ন এনজিও ও ব্যক্তিরা নানাভাবে প্রভাবিত করেছে। তাদের মধ্যে খাগড়াছড়িতে ১৪৪টি পরিবারের ৩৪২জন সদস্য ও বান্দরবানে ১০টি পরিবারের ৩৩জন। রাঙামাটিতে ধর্মান্তরিত হলেও এর সঠিক সংখ্যা কারো জানা নেই।

রাষ্ট্রীয় এক গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য দিয়ে ইনকিলাব জানায়, গত ২০ বছরে পার্বত্য এলাকায় ১৫ হাজার আদিবাসী জনগোষ্ঠী খ্রিস্টান হয়ে গেছে।  এছাড়াদু’দশক আগে বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা সংখ্যার দিকে দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও এখন বান্দরবানে বৌদ্ধরা তৃতীয় স্থানে চলে এসেছে।

Facebook Comments

বৌদ্ধদের আরো তথ্য ও সংবাদ পেতে হলে আমাদের ফেসবুক ফ্যান পেইজে লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন।: www.facebook.com/buddhisttimes

দি বুড্ডিস্ট টাইমস.কম একটি স্বতন্ত্র ইন্টারনেট মিডিয়া। এখানে বৌদ্ধদের দৈনন্দিন জীবনের বিষয়গুলোকেই তুলে আনার চেষ্টা করা হয়। পাশাপাশি যে কেহ লিখতে পারেন দি বুড্ডিস্ট টাইমস এ। দি বুড্ডিস্ট টাইমস এর সাথে লেখ-লেখিতে যুক্ত হতে চাইলে ব্যবহার বিধি ও নীতিমালা পড়ুন অথবা নিবন্ধন করুন
এখানে।
এক্সিকিউটিভ এডিটর । দি বুড্ডিস্ট টাইমস ডটকম
http://www.thebuddhisttimes.com

দি বুড্ডিস্ট টাইমস.কম একটি স্বতন্ত্র ইন্টারনেট মিডিয়া। এখানে বৌদ্ধদের দৈনন্দিন জীবনের বিষয়গুলোকেই তুলে আনার চেষ্টা করা হয়। পাশাপাশি যে কেহ লিখতে পারেন দি বুড্ডিস্ট টাইমস এ।

Leave a Comment

error: অনুগ্রহ করে কপি/পেস্ট মনোভাব পরিহার করি নিজে লেখার যোগ্যতা অর্জন করুন।