Category archives for: জীবনী

গিরিশচন্দ্র বড়ুয়া বিদ্যাবিনোদ (১৮৯১-১৯৬৩)

গিরিশচন্দ্র বড়ুয়া বিদ্যাবিনোদ এর জন্ম ১৮৯১ সালে দক্ষিণ জোয়ারা, চন্দনাইশ, চট্টগ্রামে। তিনি পালি ও সংস্কৃত শিক্ষায় ব্রতী হন এবং আদ্য ও মধ্য পরীক্ষায় স্বর্ণপদক নিয়ে পাস করেন। এর কিছুদিন পর রেঙ্গুন গমন করেন। সেখানে বার্মা ভাষা শিখে পত্র-পত্রিকায় বার্মা ভাষায় প্রবন্ধাদি লিখেন। কয়েক বছর পর কলকাতায় আগমন করে ১৯২৩ সালে ৩২ বছর বয়সে মেট্রিকুলেশন এবং […]

থেরীগণের শ্রেষ্ঠ মহাপ্রজাপতি গৌতমী

মহাপ্রজাপতি সুপ্রবুদ্ধের পরিবারে দেবদহ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি রানি মহামায়ার কনিষ্ঠ বোন ছিলেন। রাজা শুদ্ধোদন দুই বোনকেই বিয়ে করেন। জ্যোতিষীগণ ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, তাঁদের প্রত্যেকের সন্তান রাজচক্রবর্তী রাজা হবেন। সিদ্ধার্থ গৌতমের জন্মের সপ্তাহকাল পরে তাঁর মাতা রানি মহামায়ার মৃত্যু হয়। মহাপ্রজাপতি গৌতমীই সিদ্ধার্থের লালন পালনের ভার গ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন নন্দের মাতা। কথিত আছে, তিনি নিজ […]

‘মৈত্রেয় বোধিসত্ত্ব’ উপাধিতে ভূষিত বুদ্ধঘোষ

বুদ্ধঘোষ ছিলেন বিখ্যাত পালি ‘অট্‌ঠকথা’ শব্দের অর্থ অর্থকথা বা ভাষ্য। বুদ্ধঘোষ খ্রিষ্টীয় পঞ্চম শতকে এক ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর জন্মস্থান নিয়ে মতভেদ রয়েছে। বুদ্ধঘোসুপ্পত্তি, চূল্লবংস প্রভৃতি গ্রন্থে তিনি বুদ্ধগয়ার নিকটবর্তী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বলে উল্লেখ পাওয়া যায়। কিন্তু বর্তমানকালের পণ্ডিতগণ মনে করেন, তিনি দক্ষিণ ভারতের অন্ধ্র প্রদেশে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর পিতা ছিলেন পণ্ডিত ব্রাহ্মণ। […]

বৌদ্ধ ইতিহাসের মহাউপাসিকা বিশাখা

বুদ্ধের সময় অঙ্গরাজ্যের ভদ্দিয় নগরে উচ্চবংশজাত ধনবান এক উপাসক ছিলেন।তাঁর নাম ছিল মেণ্ডক শ্রেষ্ঠী। ধনঞ্জয় নামে তাঁর এক পুত্র ছিলেন।তাঁর স্ত্রীর নাম ছিল সুমনাদেবী।তাঁরা অত্যন্ত ধার্মিক এবং দান ও সেবাপরায়ণ ছিলেন।তাঁদেরই কোন আলো করে জন্ম নিয়েছিলেন বিশাখা।ছোটকাল থেকে বিশাখা অত্যন্ত উদার প্রকৃতির ছিলেন।দান ও বিবিধ কল্যাণকর্মের জন্য তাঁর খুবই সুখ্যাতি ছিল।দানকর্ম ও ভিক্ষুসঙ্ঘকে সেবা করার […]

ধুতাঙ্গ শ্রেষ্ঠ মহাকাশ্যপ স্থবির

মগধ রাজ্যের অন্তর্গত মহাতীর্থ নামক এক ব্রাহ্মণ গ্রাম ছিল। সে গ্রামের কপিল ব্রাহ্মণের গৃহে এক শিশুর জন্ম হয়। তাঁর নাম রাখা হয় পিপফলী। তিনি যৌবনে প্রব্রজ্যা গ্রহণের উদ্দেশ্য নির্জনে অবস্থান করতেন। মা-বাবার একান্ত অনুরোধে ভদ্রা কপিলানির সাথে তাঁর বিয়ে হয়। কিন্তু দুজনেই প্রব্রজ্যা প্রার্থী ছিলেন। তাঁরা দুজনে দুদিকে যাত্রা করলেন। এ সময় পৃথিবী কম্পিত হয়। […]

কোশল রাজ রাজা প্রসেনজিত

রাজা প্রসেনজিত ছিলেন কোশলের রাজা।শ্রাবস্তী ছিল কোশলের রাজধানী এবং খুবই সমৃদ্ধশালী নগরী।শ্রাবস্তীতে বুদ্ধ অনেক ধর্মোপদেশ দান করেছেন।এখানে তাঁর জীবনের অনেক স্মৃতি বিজড়িত আছে।তাই শ্রাবস্তী বৌদ্ধদের একটি প্রধান তীর্থস্থান।এর বর্তমান নাম সাহেত-মাহেত।এটি বর্তমানে ভারতের উত্তর প্রদেশে অবস্থিত।প্রজেনজিত ছিলেন কোশলের রাজা মহাকোশলের পুত্র এবং বুদ্ধের সমসাময়িক।তিনি তক্ষশিলায় লেখাপড়া করেন।লিচ্ছবি মহালি এবং মল্ল রাজপুত্র ভণ্ডুল ছিলেন তাঁর সহপাঠী।তিনি […]

সারিপুত্র ও মৌদগল্যায়ন

বৌদ্ধধর্মের প্রচার-প্রসারে অনেক রাজা, মন্ত্রী, শ্রেষ্ঠী, উপাসক-উপাসিকা, ভিক্ষু এবং ভিক্ষুণী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।তাঁদের কর্ম ও অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বৌদ্ধধর্মের ইতিহাসে তাঁরা এখনও অমর হয়ে আছেন। তেমনি বুদ্ধশিষ্য সারিপুত্র ও মৌদগল্যায়ন ছিল অন্যতম। বুদ্ধ-প্রবর্তিত সঙ্ঘে সারিপুত্র ও মৌদগল্যায়নের অবস্থান ছিল শীর্ষে।তাঁরা ছিলেন বুদ্ধের অগ্রশ্রাবক।শ্রাবক শব্দের অর্থ হলো শিষ্য বা যিনি ধর্মীয় বিষয় শ্রবণ-ধারণ-পালন করেন।অতএব, অগ্রশ্রাবক হলো […]

২৬তম সংঘনায়ক শ্রীমৎ প্রিয়ানন্দ মহাথের

বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার ২৬তম সংঘনায়ক, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের প্রতিষ্ঠাতা-যুগ্ন মহাসচিব, দর্ন সাগর শ্রদ্ধেয় প্রিয়ানন্দ মহাথের ১৯২৩ সালের ২৩শে মার্ রাউজান উপজেলার পূর্বগুজরা হোয়ারাপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পিতার নাম ললিত কুমার বড়ুয়া এবং মাতার নাম বিপুলা বড়ুয়া। গৃহী নাম ছিল অর্জুন বড়ুয়া এছাড়া বীভৎসু, অভিমন্যু ও ননা নামেও তিনি পরিচিত ছিলেন। ১৯৩৫ সালে […]

ধর্ম আলোয় আলোকিত, পুণ্য প্রভায় প্রভাবিত পূজনীয় প্রজ্ঞাবংশ মহাস্থবিরের জন্মবার্ষিকীতে বুড্ডিষ্ট টাইমসের পক্ষ থেকে বিনম্র বন্দনা

ইলা মুৎসুদ্দীঃ ২০শে আগষ্ট পরম পূজনীয় গুরুভান্তের ৬৬তম জন্মবার্ষিকী। যিনি এখন ফ্রান্সে বসবাস করছেন এবং তিনি প্রব্রজ্যা লাভের পর আজ অবধি ধর্মসুধা বিতরণ করে যাচ্ছেন দেশে-বিদেশে সর্বত্র। ধর্ম আলোয় আলোকিত, পুণ্য প্রভায় প্রভাবিত, দেব-নর পূজিত আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন, শাসন সদ্ধর্মের উজ্জ্বল আলোকরশ্মি, বহু গ্রন্থ রচয়িতা ধুতাঙ্গ সাধক পরম পূজনীয় প্রজ্ঞাবংশ মহাস্থবিরের ৬৬তম জন্মবার্ষিকীতে বুড্ডিষ্ট টাইমসের পক্ষ […]

বঙ্গীস স্থবির

পদুমুত্তর বুদ্ধের সময় বঙ্গীস হংসবতী নগরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ধনী পরিবারের সন্তান ছিলেন। সে সময় তিনি বহু বিহার নির্মাণ করে বুদ্ধকে দান করেছিলেন। গৌতম বুদ্ধের সময় তিনি শ্রাবস্তীতে এক ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্ম নেন। তিনি ত্রিবেদে পারদর্শী ছিলেন। এক গুরুর নিকট মৃত শির মন্ত্র শিক্ষা করেন। এ মন্ত্র শিখে ব্রাহ্মণ দেশ বিদেশে ভ্রমণ করতেন। তিনি তিন […]

মহাপ্রজাপতি গৌতমী

মহাপ্রজাপতি গৌতমী দেবদাহ নগরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন সিদ্ধার্থের মাতা মায়াদেবীর ছোট বোন। রাজা শুদ্ধোদন উভয় বোনকে বিয়ে করেন। সিদ্ধার্থের জন্মের সাত দিন পর মায়াদেবীর মৃত্যু হয়। মহাপ্রজাপতি গৌতমী সিদ্ধার্থের লালন পালনের ভার স্বহস্তে গ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন নন্দের মাতা। নিজ পুত্রের দেখাশোনার ভার ধাত্রীর হাতে অর্পণ করেন। এক সময় বুদ্ধ বৈশালীতে অবস্থান করছিলেন। তখন […]

সংঘনায়ক আনন্দমিত্র মহাস্থবির

জন্ম ১লা ফেব্রুয়ারী ১৯০৮ ইংরেজী। পিতাঃ চরপ্রু বড়ুয়া, মাতাঃ দয়মন্তী বড়ুয়া। জন্মস্থানঃ চট্টগ্রমা রাজুজান থানাধীন পশ্চিম আধার মানিক গ্রাম। গৃহী নামঃ যতীন্দ্র বড়ুয়া। ৬ বছর বয়সে নিজ গ্রামের স্কুলে শিক্ষা জীবন শুরু। প্রাথমিক স্কুল জীবন থেকে তাঁর মেধার পরিচয় পাওয়া যায়। চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র অবস্থায় সে তখন ষষ্ঠ শ্রেণীর পাটিগণিতের অংকগুলো কষ্‌তে পারত।প্রাথমিক শিক্ষাজীবন শেষ […]

Smiley face

সর্বশেষ টাইমস

Recent Posts: NivvanaTV covering Buddhist and Buddhist community in World, with weekly news, views, entertainment, and programs for all age.

কুমিল্লায় ৩শ’ বছর পুরোনো বৌদ্ধ বিহার সদৃশ্য নকশা উদ্ধার

কুমিল্লায় ৩শ’ বছর পুরোনো বৌদ্ধ বিহার সদৃশ্য নকশা উদ্ধার

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার বাজার সংলগ্ন একটি জমি থেকে মাটি খুড়ে তিন স্থরের একটি বৌদ্ধ বিহার সদৃশ নকশা অবকাঠামো পাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্র বলছে, গত ১০ জানুয়ারী কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার বাজার সংলগ্ন একটি জমির মাটি ভরাটের কাজ করার সময় বৌদ্ধ মন্দির সদৃশ্য নকশাটি পেয়ে কাজে নিয়োজিত শ্রমিকেরা এটি লুকিয়ে পেলে। পরে […]

Photo Gallery

Top Downloads

Icon

The Buddhist Times Android apps 46.21 KB 54 downloads

...
Icon

অভিধর্ম্মার্থ সংগ্রহ 1.65 MB 1 downloads

গ্রন্থের নামানুসারে ইহা একটি অর্থ-সংগ্রহ...
Developed by Dhammabiriya
error: অনুগ্রহ করে কপি/পেস্ট মনোভাব পরিহার করি নিজে লেখার যোগ্যতা অর্জন করুন।